মেনু নির্বাচন করুন

ইউডিসি

5নং পার্বতীনগর ইউনিয়ন

কম্পিউটার  প্রশিক্ষন,

কম্পিউটার

কম্পোজ,

ফটোকপি,

কম্পিউটার সেলস

কম্পিউটার সার্ভিসিং

ছবিতোলা,

ফোনকল,

ইজিলোড,

স্ক্যানিং,

সকলপ্রকারডিজিটালপ্রিন্টিং,

প্রজেক্টরপ্রদর্শনী/ভাড়া, ªলেমিনেটিং, ªমোবাইলসার্ভিসিং, ªসরকারীফরম,

ডাচ্বাংলামোবাইলব্যাংকিং

অনলাইনজন্মনিবন্ধন

অন লাইনে যে কোন ফরম পূরন সহ যাবতীয় কাজ করা হয়।

 

 

জনগনের দোরগড়ায় তথ্য সেবা পৌছে দেবার লক্ষ্যে স্বল্প মূল্যে

ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্র এ সকল সার্ভিস দিয়ে আসছে..........

এয়ারটেলের‌ মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু

Published by PriyoTech on Sun, 26/08/2012 - 12:26pm

PriyoTech's picture

 

(প্রিয় টেক) মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করলো এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেড। ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং কার্যক্রমের এর মাধ্যমে এয়ারটেলের সব গ্রাহক ডাচ বাংলা ব্যাংকের মোবাইল একাউন্ট খোলার মাধ্যমে ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট, রেমিটেন্স, টাকা পাঠানো, স্যালারি ডিসবার্সমেন্ট এবং মোবাইল টপ আপের মত সেবাও গ্রহণ করতে পারবেন। ফলে সিটিসেল ও বাংলালিংক ব্যবহারকারীরাও এই সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। খুব শিগগিরই আরেকটি মোবাইল অপারেটর কোম্পানি এ সেবার যুক্ত করা হবে।

undefined

২৫ আগস্ট নগরীর কাঁচকুড়ায় উত্তরখান ইউনিয়নে অবস্থিত তথ্য সেবা কেন্দ্র (ইউ.আই.এস.সি) প্রাঙ্গণে এ সার্ভিসের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী ঘোষণা দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড: আতিউর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়ের মাননীয় সচিব এন আই খান এবং বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল অব. জিয়া আহমেদ পিএসসি।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডাচ বাংলা ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ কমিটি চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদ, ম্যানেজিং ডিরেক্টর কে শামসি তাবরেজ, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এ কে এম শিরীন, এয়ারটেল বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর ক্রিস টবিট, সিএসও এবং হেড অফ এম-কমার্স রুবাবা দৌলা।

ইউ.আই.এস.সি সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় একটি বিশেষ কার্যক্রম, যেখানে তরুণ উদ্যোক্তারা বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সেবা দেন। এযাবৎ ৯০০২ জন তরুণ উদ্যোক্তা দেশজুড়ে ৪৫০১টি ইউ.আই.এস.সি-তে সেবা দিচ্ছে। এয়ারটেল নিজস্ব এজেন্ট নেটওয়ার্ক ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদে অবস্থিত ইউ.আই.এস.সি-এর মাধ্যমে ডিবিবিএল মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধা প্রদান করছে। আজ থেকে দেশের ৬৪টি জেলার অধিকাংশ এয়ারটেল এজেন্টদের কাছে এই সেবাটি পাওয়া যাবে।

অনুষ্ঠানে ড. আতিউর রহমান ব্যাংকিং এবং টেলিকম সহযোগীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের যারা এখনও ব্যাংকিং সেবার আওতার বাইরে মোবাইল ব্যাংকিং কর্যক্রমের মাধ্যমে তাদেরও অচিরেই এই সেবার আওতায় আনা যাবে। তিনি আরও বলেন, বিকল্প পরিশোধ চ্যানেল হিসাবে ব্যাংকিং খাতে মোবাইল প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক ২৩টি ব্যাণিজ্যিক ব্যাংককে মোবাইল ভিত্তিক বিভিন্ন আর্থিক সেবা প্রদানের অনুমোদন দিয়েছ। এর মধ্যে চালু হয়েছে ১৪টি ব্যাংক। তবে দুই-তিনটি ব্যাংক এই খ্যাতে বেশ ভালো কাজ করছে।

ড. আতিউর রহমান বলেন, এই ব্যাংকগুলো সারা দেশে ১৮ হাজার ৫৮১টি এজেন্ট লোকেশনের মাধ্যমে প্রায় ৮ লাখ গ্রাহককে মোবাইল প্রযুক্তিবিত্তিক বিভিন্ন আর্থিক সেবা পৌছে দিচ্ছে।এবং এই খাতে প্রতি মাসে প্রায় এক হাজার কোটি টাকা লেনদেন হচ্ছে।

এসময় ক্রিস টবিট ক্রিস টবিট বলেন, ডিবিবিএল এর সহায়তায় এয়ারটেল তার গ্রাহকদের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং সুবিধাদি নিয়ে আসতে আগ্রহী। দেশের সবচেয়ে অভিনব টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান হিসেবে এয়ারটেল মোবাইল ব্যাংকিং ছাড়াও অদূর ভবিষ্যতে আরও এমন অনেক সেবা নিয়ে আসবে যা গ্রাহকদের জীবন যাত্রার মান উন্নয়নে যথেষ্ট সহায়তা করবে।

২০১১ সালের ৩১ মার্চ দেশে প্রথমবারের মতো মোবাইল ব্যাংকিং সেবা চালু করে ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক।

 

 

প্রতিমাসে 2০০/3০০ লোক এ থেকে সেবা গ্রহন করে থাকে